লাটভিয়া কাজের ভিসা | লাটভিয়া ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া

লাটভিয়া কাজের ভিসা


লাটভিয়া কাজের ভিসা নিয়ে আজকে আমরা বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব। লাটভিয়া উত্তর ইউরোপের ছোট্ট একটি সুন্দর দেশ। প্রধান রাজধানী হল রিগা এটি একটি বৃহত্তম শহর হিসেবে বিবেচিত। এবং এটি প্রধান রাজধানী এ শহরের 25 পার্সেন্ট এলাকাজুড়ে কৃষি কাজের উপযোগী। বর্তমানে দেশে অনেক দেশ থেকেই সেখানে পাড়ি জমাচ্ছে আজকে আমরা কথা বলবো লাটভিয়া কাজের ভিসা নিয়ে এবং সেখানে কিভাবে কাজ করবেন এবং কতদিন পর্যন্ত ভিসার মেয়াদ হয় এই নিয়ে বিস্তারিত ভাবে আজকে আমরা তুলে ধরব তাহলে চলুন পর্যায় ক্রমে দেখে নেওয়া যাক।


বর্তমানে বিভিন্ন দেশ থেকে লাটভিয়া তে অনেকেই পাড়ি জমাচ্ছে। তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে তারা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রবেশ করার জন্য প্রথমত এই দেশেই গিয়ে থাকে পরবর্তীতে তারা অন্যান্য দেশে যাওয়ার জন্য সেখান থেকে ব্যবস্থা করে নেয়। বর্তমানে লাগবে তিন লাখেরও বেশি মানুষ নাগরিকত্ব ছাড়াইসেখানে বসবাস করছে। তারা হয়তো বা ভবিষ্যতে নাগরিকত্ব পাবে আর তা না হলে তারা অন্যান্য দেশে প্রবেশ করার জন্যই তারা এখন পর্যন্ত অবস্থান করছে। তাই আপনিও যদি সেখান থেকে অন্যান্য দেশে যেতে চান তাহলে আপনাকে নির্দিষ্ট কিছু প্রসেস মেনে তারপরে যেতে হবে।


লাটভিয়া কাজের ভিসা

লাটভিয়া তে কয়েক ধরনের ভিসা সার্ভিস চালু আছে। এই তিন ধরনের ভিসার মধ্যে আপনি যেকোনো এক ধরনের ভিসা নিয়ে লাগবে হেঁটে যেতে পারবেন। তবে সব দেশেই লাটভিয়ার এম্বাসি রয়েছে তা কিন্তু নয় নির্দিষ্ট কিছু দেশে এম্বাসি রয়েছে তাছাড়া আপনি অন্যান্য এম্বাসি মাধ্যমে খুব সহজেই ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। যেমন চাইনা এর মাধ্যমে অথবা জার্মানি এর মাধ্যমে খুব সহজে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

  • স্টুডেন্ট ভিসা
  • টুরিস্ট ভিসা
  • ওয়ার্ক ভিসা
বর্তমানে লাটভিয়া তে এই তিন ধরনের ভিসা চালু আছে এই তিন ধরনের ভিসা নিয়ে যে কেউ সে দেশে যেতে পারবে এবং কাজ করতে পারবে তবে স্টুডেন্ট ভিসার ক্ষেত্রে প্রসেস একটু ভিন্ন রকম হতে পারে সে বিষয় নিয়ে পরবর্তীতে আমরা অন্য একটি কনটেন্ট এর মাধ্যমে তুলে ধরব।


লাটভিয়া ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া

জার্মান এমব্যাসি অথবা চাইনা এমবির মাধ্যমে আপনারা আবেদন করতে পারবেন। তবে সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাদের নির্দিষ্ট কিছু ডকুমেন্ট প্রয়োজন আছে এই সমস্ত ডকুমেন্ট তারপরে আপ্নারা ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে তাদের কোন এমব্যাসি এখন পর্যন্ত তৈরি হয়নি তাই আপনারা জার্মানি অথবা চীন এই দুইটা অ্যাডভান্স এর মাধ্যমেই আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করতে হলে কাদের এম্বাসির হেড অফিসে গিয়ে আবেদন ফরম নিয়ে ভালোমতো পূরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো জমা দিতে হবে।


লাটভিয়া যেতে কি কি কাগজপত্র লাগবে

  • এনআইডি কার্ডের ফটোকপি
  • 6 মাস মেয়াদী ভ্যালিড পাসপোর্ট
  • বিমান টিকিটের ফটোগ্রফি
  • চেয়ারম্যান কর্তৃক স্বাক্ষরিত সনদ
  • ব্যাংক স্টেটমেন্ট এর ফটোকপি
  • যেকোন ভাষা বিষয়ে দক্ষ তার একটি প্রমাণ
  • অন্যান্য দেশে ট্রাভেল করেছেন তার প্রমাণ

লাটভিয়াতে কেন কাজে যাবেন

বর্তমানে প্রতিনিয়ত লাটভিয়া তে কাজের সুযোগ তৈরি হচ্ছে তাই বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ থেকে কাজের জন্য লাগবে হাতে পাড়ি জমাচ্ছে তাছাড়াও দুবাই মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর থেকে সেখানে যাচ্ছে শুধুমাত্র অন্যান্য দেশে প্রবেশ করার জন্য কারণ এখান থেকে খুব সহজেই অন্যান্য দেশে প্রবেশ করা যায় তবে কিছু নিয়ম আছে তার মধ্যে আপনাকে এখান থেকে প্রবেশ করতে হবে। 


লাটভিয়া থেকে ইউরোপের অন্যান্য দেশে গেলে আপনি বিভিন্ন ধরনের কাজে নিয়োজিত হতে পারবেন যেমনঃ হোটেল কর্মী ড্রাইভার এর কাজ কনস্ট্রাকশন কোম্পানিতে কাজ এই সমস্ত কাজ করার জন্যই সেখানে যেতে পারবেন তবে সেখানে মেইনলি আপনি বিভিন্ন কাজ করার পাশাপাশি অন্যান্য দেশে যাওয়ার সুযোগ তৈরি করতে পারবেন।


রোমানিয়া কোন কাজের চাহিদা বেশি?   সুযোগ সুবিধা কেমন এবং সেলারি কত?


লাটভিয়া কি কি কাজ পাওয়া যায়

লাটভিয়ায় বর্তমান কৃষি কাজ করতে পারবেন তাছাড়াও আপনারা কনস্ট্রাকশন কোম্পানিতে কাজ করতে পারবেন সেই সাথে বিভিন্ন দেশের এজেন্সির মাধ্যমে আপনারা অন্যান্য দেশে গিয়ে কাজ করতে পারবেন তবে সেক্ষেত্রে আপনাদেরকে অবশ্যই পাসপোর্ট থাকতে হবে যদি আপনার পাসপোর্ট থাকে তাহলে সেদেশের মাধ্যমে অন্যান্য কোম্পানিতে গিয়েও আপনারা খুব সহজেই কাজ করতে পারবেন। আর এই কাজ করতে হলে আপনার টুরিস্ট ভিসা অথবা যেকোনো ধরনের ভিসা থাকা লাগবে।


অনেকেই আছে যারা দুবাই অথবা মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর বিভিন্ন দেশ থেকে সেখানে গিয়ে আছে এবং বর্তমানে কাজে নিয়োজিত আছে তারা সময় সুযোগ বুঝে ইউরোপের বিভিন্ন কান্ট্রি তে ঢোকার জন্য এখানে বর্তমানে বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত আছে। লাটভিয়ার সরকার তারা নিশ্চিত করেছে যে যারা এখন পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করছে তিন লাখের মতো মানুষ তাদেরকে বিভিন্ন রকম সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার। এরইমধ্যে হয়তবা তারা সে দেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তবে বর্তমানে সেখানে 5 বছরের অধিক সময় অবস্থান করেছে তাদেরকে শুধুমাত্র দেওয়া হবে বলে নিশ্চিত করেছে।


লাটভিয়ায় কাজের বেতন কত

লাটভিয়া কাজের বেতন বিভিন্ন রকমের হয়ে থাকে তবে সাধারণত মাসে 70 হাজার থেকে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন সেক্ষেত্রে আপনাকে ভালো কোন কোম্পানির সাথে চুক্তি করতে হতে পারে অথবা আপনি অন্যান্য বিদেশি বিভিন্ন কনস্ট্রাকশন কোম্পানি রয়েছে সেই সমস্ত কোম্পানিতে আপনি যদি কাজ করেন তাহলে মাসে 1 লক্ষ টাকা থেকে আপনি দুই লাখ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন। তবে সেটা আপনার কাজের উপর নির্ভর করবে আপনি যদি পার্টটাইম সহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বুঝে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনার জন্য অনেকটাই ভালো হবে।


তবে লাটভিয়া তে থাকা অবস্থায় আপনাকে অবশ্যই অন্যান্য দেশে যাওয়ার জন্য ব্যবস্থা তৈরি করে নিতে হবে কারণ লাগাতে সেই হারে সুযোগ-সুবিধা আপনি পাবেন না যা অন্যান্য ইউরোপ কান্ট্রির মধ্যে পাবেন। লাভেরিয়া দেশটিকে সবাই অন্যান্য দেশে যাওয়ার জন্য ব্যবহার করে থাকে তাই সেখানে শুধুমাত্র কাজের ভিসা নিয়ে গেলেও আপনি কাজ করতে পারবেন অথবা সেখান থেকে আপনি অন্যান্য দেশে যাওয়ার ব্যবস্থা তৈরি করতে পারবেন।


বাংলাদেশ থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | ইতালিতে বেতন কত?


লাটভিয়ার বর্তমান অবস্থা কি

বর্তমানে প্রায় তিন লক্ষ মানুষের মতো এখনো আছে যারা নাগরিকত্ব পায় নি রিসেন্টলি এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে যে যারা এখন পর্যন্ত নাগরিকত্ব পায়নি তাদের বয়স যদি এখানে পাঁচ বছরের অধিক সময় বসবাস করে তাহলে তারা নাগরিকত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাই উপযুক্ত প্রমাণ নিয়ে কেউ যদি নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করে তাহলে তার বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে বলে নিশ্চিত করেছে।


বর্তমানে কাজের সুযোগ এবং কৃষি কাজের সুযোগ তৈরি হচ্ছে তাই সে হিসাবে বিদেশ থেকে এখানেই গিয়ে বিজনেস উদ্দেশ্যে অথবা কাজের উদ্দেশ্যে সেখানে পাড়ি জমাচ্ছে তাই চাইলে যে কেউ লাটভিয়া কাজের ভিসা নিয়ে সেখানে যেতে পারবে এবং কাজ করার পারমিশন পাবে।


লাটভিয়ার ভিসা কিভাবে পাবেন

লাটভিয়ার ভিসার জন্য আবেদন করতে হলে আপনাকে জার্মান এমব্যাসি অথবা চায়না এম্বাসি মাধ্যমে আপনাকে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। ভিসা নিতে হলে আপনার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট গুলো সঙ্গে নিয়ে আবেদন ফরমের সাথে এডজাস্ট করতে হবে তারপরেই আপনাকে 24 দিনের মধ্যে ইমেইলের মাধ্যমে অথবা ফোনের মাধ্যমে আপনাকে ভিসা নিশ্চিত করবে। তারপরেই আপনি লাটভিয়া যাওয়ার পারমিশন পাবেন।


বিদেশ যাওয়ার জন্য কোন ব্যাংক লোন দেয় দেখে নিন


লাটভিয়ায় কোন কাজের চাহিদা বেশি

বর্তমানে কৃষি কাজের প্রতি তারা বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে সেইসাথে কনস্ট্রাকশন কম্পানি সহ বিভিন্ন আইটি কোম্পানিতে ব্যাপক ভাবে লোক নিয়োগ দিচ্ছে লাটভিয়া সরকার। বর্তমানে আইটি বিষয়ক কাজ শিখে অথবা কৃষি কাজের উপর দক্ষতা অর্জন করে লাটভিয়া কেউ যেতে পারবে। তা ছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাজ করার সুযোগ যেমন হোটেল কর্মী, নার্সারি, ড্রাইভিং, সব ধরনের কাজ এই সমস্ত কাজ গুলো করে আপনি মাসে অনায়াসে দুই থেকে তিন লাখ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন।


ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন | ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি ২০২২

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url